চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

দুবার পিছিয়ে পড়েও আবাহনীর ড্র

ম্যাচের আগে মিনার্ভা পাঞ্জাবের অ্যাওয়ে ম্যাচ ছিল আলোচনায়। ভারতীয় দলটি নাকি অ্যাওয়ে ম্যাচে দারুণ পয়মন্ত! অন্যদিকে এএফসি কাপে ঘরের মাঠও আবাহনীর জন্য খুব পয়া নয়। তবে এবার যে অ্যাওয়ে ম্যাচ জিতে টুর্নামেন্ট শুরু করা বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নকে অন্য রকম দেখাচ্ছিল। অতীতের ‘পয়া-অপয়া’ ওলটপালট করে নতুন ইতিহাস লেখায় মরিয়া ছিল আকাশি-নীলরা। কিন্তু সেটা হয়নি। মিনার্ভা পাঞ্জাবের সঙ্গে ২-২ গোলে ড্র করেছে তারা।

গত ২ এপ্রিল নেপালের মানাং মার্সিয়াংদিকে হারিয়ে শুরু করা আবাহনী এ ম্যাচ জিতলে ৬ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপে শীর্ষে থাকত। সেটা হয়নি। তবে দুইবার পিছিয়ে পড়েও শেষ পর্যন্ত দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে ড্র নিয়ে মাঠ ছাড়ে তারা।

ম্যাচ হয়ে বেশ হাড্ডাহাড্ডি। তবে পরিসংখ্যানের বিচারে অধিকাংশ ক্ষেত্রে অল্প ব্যবধানে হলেও এগিয়ে ছিল মিনার্ভা। টার্গেটে সমান ছয়টি করে শট নিয়েছে দুদল। বল পজেশনে অবশ্য এগিয়ে ছিল মিনার্ভা (আবাহনী ৪৫%, মিনার্ভা ৫৫%)। আবাহনীর ২২৯ পাসের বিপরীতে মিনার্ভার পাস সংখ্যা ৪১০। ম্যাচে ২০টি ফাউল হলেও কোনো দলের খেলোয়াড়ই হলুদ বা লাল কার্ড দেখেননি।

মোট শটে পিছিয়ে থাকলেও ম্যাচের ১৬ মিনিটে অতিথিদের এগিয়ে দেন মাহমুদ আমনাহ। চার মিনিটের বেশি সময় অবশ্য সেই লিড ধরে রাখতে পারেনি মিনার্ভা। ২০ মিনিটের সময় স্বাগতিকদের হয়ে সমতা ফেরান নাবিব নেওয়াজ জীবন।

সমতায় থেকে যখন দুদল বিরতিতে যাওয়ার চিন্তা করছিল। ঠিক তার আগ দিয়ে আবার লিড নেয় মিনার্ভা। ৪২ মিনিটে দারুণ এক গোলে অতিথিদের দ্বিতীয়বার লিড এনে দেন শ্রেয়াস গোপলান। ২-১ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় মিনার্ভা।

দ্বিতীয়ার্ধে মাঠে নেমে শুরু থেকেই সমতায় ফেরার নেশায় মাতে আবাহনী। ফল পেতেও দেরি হয়নি তাদের। ৪৮ মিনিটে দলকে সমতায় ফেরান সানডে চিজোবা। এরপর উভয় দল একাধিক সম্ভাবনাময় সুযোগ তৈরি করলেও কাঙ্খিত গোলের দেখা পায়নি। ফলে ২-২ গোলের ড্র নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় তাদের।

আবাহনীর পরের ম্যাচ ৩০ এপ্রিল চেন্নাই এফসির বিপক্ষে।

এই ড্রয়ে গ্রুপ ‘ই’তে শীর্ষেই রইলো আবাহনী। দুই ম্যাচের একটিতে জয় আর একটিতে ড্র করে তাদের সংগ্রহ ৪ পয়েন্ট। দুই ম্যাচের দুটিতেই ড্র করা মিনেরভার পয়েন্ট ২, অবস্থান দুইয়ে। আপাতত তিনে থাকা চেন্নাইন এফসি এক ম্যাচ খেলে ১ পয়েন্ট পেলেও নেপালের চ্যাম্পিয়ন মানাং মার্সিয়াং কোনো পয়েন্ট অর্জন করতে পারেনি।

FacebookTwitterInstagramPinterestLinkedInGoogle+YoutubeRedditDribbbleBehanceGithubCodePenEmail