চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

দর্শকের কাছে ভোট চাইলেন রিয়াজ-ফেরদৌস!

ভালো অভিনয়ের বিনিময়ে নৌকায় ভোট চাইলেন রিয়াজজ-ফেরদৌস

৩০ ডিসেম্বর নির্বাচনের আগে প্রচারণায় অংশ নিতে গতকাল (বুধবার) সকালে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তার সফর সঙ্গী হিসেবে টুঙ্গিপাড়ায় গিয়েছিলেন চিত্রনায়ক রিয়াজ ও ফেরদৌস।

বিজ্ঞাপন

দুজনেই আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রচারণায় জোরালো ভাবে মাঠে নেমেছেন। নৌকা প্রতীকে ভোট দেওয়ার জন্য জনগণের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানিয়েছেন তারা।

প্রধানমন্ত্রীর নির্বাচনী আসনে গোপালগঞ্জ ৩- এ গিয়ে বক্তৃতা দিয়েছেন চিত্রনায়ক রিয়াজ। ওইসময়ে স্টেজে বসে ছিলেন শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানাসহ আওয়ামী লীগের শীর্ষস্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

মঞ্চে দাঁড়িয়ে হাজারো মানুষের উদ্দেশ্যে চিত্রনায়ক রিয়াজ বলেন, আমার অভিনয় ভালো লাগলে তার বিনিময়ে নৌকায় ভোট দেবেন। দীর্ঘ ক্যারিয়ারে যদি অভিনয়ের মাধ্যমে বিন্দুমাত্র আনন্দ দিয়ে থাকি, তবে ভোট দিয়ে আবার আওয়ামী লীগ সরকারকে ক্ষমতায় আনবেন। আমার এই একটা চাওয়া আপনারা রাখবেন।

চিত্রনায়ক রিয়াজ বলেন, টুঙ্গিপাড়ায় জাতীর পিতার নাড়ি পোতা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নাড়ি পোতা। সেখানে আসতে পেরে, কথা বলতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করছি। অত্যন্ত সম্মানিতবোধ করছি।

তিনি বলেন, আসন্ন নির্বাচন আমাদের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচন। সেই নির্বাচনে সবাই মিলে নৌকায় ভোট দেবেন।

বক্তৃতা দেওয়ার সময় রিয়াজ বলেন, আমরা ২০২১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতার সূবর্ণজয়ন্তী ও জাতীর পিতার শত বছর একসাথে পালন করবো প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে।

রিয়াজের পরেই বক্তৃতা দেন আরেক নায়ক ফেরদৌস। তিনি বলেন, আসন্ন নির্বাচন আমাদের অস্তিত্ব রক্ষার নির্বাচন। সেখানে আমাদের জয়ী হতেই হবে। আমার ২০ বছরের চলচ্চিত্র ক্যারিয়ারে যদি বিন্দুমাত্র ভালোবেসে থাকেন তবে নৌকায় ভোট দেবেন। তরুণ প্রজন্মের যারা প্রথম ভোট দেবে তারা অবশ্যই যেন নৌকায় ভোট দেয়। আগামীতে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমাদের দেশকে আরও এগিয়ে নিতে চাই।

এরআগে গত ২১ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফর সঙ্গী হিসেবে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের (ইউএনজিএ) ৭৩ তম অধিবেশনে যোগ দিতে ছয়দিনের সরকারি সফরে নিউ ইয়র্ক গিয়েছিলেন রিয়াজ ও ফেরদৌস।

একাদশ সংসদ নির্বাচনে গোপালগঞ্জ-৩ (টুঙ্গিপাড়া, কোটালিপাড়া) আসন থেকে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন আওয়ামী লীগের দলীয় প্রধান ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।