চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জকে ভালোবাসি: পামেলা এন্ডারসন

লন্ডন কারাগারে বন্দী উইকিলিকসের প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জকে দেখতে গিয়েছেন বেওয়াচ খ্যাত তারকা অভিনেত্রী পামেলা এন্ডারসন। সেখানে গিয়ে আবেগতাড়িত হয়ে জুলিয়ানকে ভালোবাসার কথা বলেন পামেলা। 

মঙ্গলবার আদালত থেকে ফিরে এসে পামেলা বলেন, ‘কারাগারে অ্যাসাঞ্জ এর জীবন ঝুঁকির মধ্যে’। আমি তাঁকে এই অবস্থায় দেখে খুব মর্মাহত হয়েছি।

বিজ্ঞাপন

জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জের জন্যে পামেলা এন্ডারসন তার ভালোবাসার কথা প্রকাশ করে বলেন, ‘জুলিয়ান একজন ভালো মানুষ। আমি তাকে ভালোবাসি।’ আমি নিজেকে বিশ্বাস করাতে পারছি না কিভাবে তার সাথে এমনটা করা হচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্রের এক সময়ের জনপ্রিয় ম্যাগাজিন ‘প্লেবয়ের ‘ মডেল পামেলা জুলিয়ানের মুক্তির বিষয়ে মুক্ত আলোচনার আহ্বান জানান। এবং বড় আকারের স্লোগান দিয়ে বিষয়টির নিরপেক্ষ সমাধান আশা করেন।

বিজ্ঞাপন

আমাদের তার জীবন রক্ষার্থে এগিয়ে আসতে হবে। তাকে অন্যায়ভাবে বন্দী করে লন্ডন কারাগারে রাখার বিষয়টা খুব গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের সবার এই বিষয়টি নিয়ে আন্দোলন করা উচিৎ। কারন জুলিয়ান একটা গোপন তথ্য ফাঁস করেছে সবার সম্মুখে।

এর আগেও পামেলাকে ইকুয়েডর দূতাবাসে জুলিয়ান অ্যাসঞ্জের জন্য খাবার নিয়ে যেতে দেখা গেছে।

পামেলা এন্ডার্সন জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জকে সম্বোধন করতেন ‘প্রিয় বন্ধু’ হিসেবে। এবং তিনি বলেছিলেন, লোকজন যদি তাদের সম্পর্ককে শুধু যৌন সম্পর্কের মধ্যে সীমিত করে ফেলে তাহলে তাতেও তিনি অবাক হবেন না।

গত ৭ বছর ধরে জামিনের শর্ত ভঙ্গ করে লন্ডনে ইকুয়েডর দূতাবাসে আশ্রয় নিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু গত ১১ এপ্রিল ইকুয়েডর অ্যাসাঞ্জকে দেয়া কূটনৈতিক আশ্রয় প্রত্যাহারের ঘোষণা দেয়। এই ঘোষণার পরপরই দূতাবাস থেকে লন্ডনের মেট্রোপলিটন পুলিশ অ্যাসাঞ্জকে গ্রেপ্তার করে।