চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

জিএসপিতে বাংলাদেশের অপেক্ষা বাড়ছে

জিএসপি পেতে হলে বাংলাদেশকে আরো কিছু কাজ করতে হবে বলে জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের সহকারি বাণিজ্য প্রতিনিধি মাইকেল জে. ডিলেনি। তিনি বলেছেন, শ্রমিক অধিকার এবং নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পারলে জিএসপি সুবিধা থেকেও বেশি অর্জন করা সম্ভব। তবে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেছেন, জিএসপি ফিরিয়ে দেয়া না হলে টিকফা চুক্তি কোনোভাবেই অর্থবহ হবে না।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

২০১৩ সালের জুনে বাংলাদেশের জিএসপির আওতায় বাণিজ্য সুবিধা স্থগিত করে দেয় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। অনেকে এটাকে রাজনৈতিক কারণ বললেও যুক্তরাষ্ট্র বলে আসছে, তথ্যের ভিত্তিতে যৌক্তিক কারণেই এমন সিদ্ধান্ত। এ নিয়ে আলোচনা-পর্যালোচনার মধ্যে ইউনাইটেড স্টেটস ট্রেড রিপ্রেজেন্টেটিভ-ইউএসটিআর এর ৮ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল ঢাকায় আসে। সহকারি বাণিজ্য প্রতিনিধি মাইকেল জে. ডিলেনির সমাপনী সংবাদ সম্মেলনে ঘুরে ফিরে আসে জিএসপি প্রসংগ।

বাণিজ্যমন্ত্রীর সঙ্গেও বৈঠক করে প্রতিনিধিদল। মন্ত্রী জানিয়েছেন জিএসপি নিয়ে কথা হয়েছে।

মার্কিন বাণিজ্য প্রতিনিধিদল বাংলাদেশের পোষাক খাতে ইপিজেডভিত্তিক ট্রেড ইউনিয়নের কথা বললে বাণিজ্যমন্ত্রী তাদের আশ্বস্ত করে শ্রমিকদের স্বার্থ রক্ষায় বিভিন্ন কল্যাণমূলক পদক্ষেপের কথা বলেছেন।