চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

জাপা: শীর্ষ নেতৃত্বে অযোগ্যতার প্রতিবাদে সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব পদ ছাড়লেন খোকা

খোকার পর পদত্যাগ করেছেন জাতীয় পার্টির আরও দুই কেন্দ্রীয় নেতা

শীর্ষ নেতৃত্বে অযোগ্যতা এবং অযোগ্যদের পদোন্নতির প্রতিবাদে জাতীয় পার্টির (জাপা) সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির সভাপতি ও নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান সাংগঠনিক এক নির্দেশে আট নেতাকে দলের প্রেসিডিয়ামে অন্তর্ভূক্তির পরই পদত্যাগের ঘোষণা দেন তিনি। পদত্যাগের পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় খোকা জানিয়েছেন: শীর্ষ নেতৃত্বে অযোগ্যতার প্রতিবাদে জাতীয় পার্টির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব পদ থেকে পদত্যাগ করলাম।

আমার পরিচয় আমি পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ ও জাতীয় পার্টির একজন সাধারণ কর্মী। সাবেক সফল রাষ্ট্রপতি পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের অসুস্থতার সুযোগ নিয়ে সুযোগ সন্ধানী অযোগ্য নেতৃত্ব জাতীয় পার্টির সাধারণ কর্মীদের আবেগ নিয়ে ছিনিমিনি খেলছেন। সে কারণেই আমি পদত্যাগ করেছি।

অন্তর্ভূক্ত নতুন এই আট নেতা হলেন- সাতক্ষীরার সৈয়দ দিদার বখত, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কাজী মামুনুর রশিদ, নীলফামারীর জাফর ইকবাল সিদ্দিকী, ফেনীর নাজমা আখতার, গাজীপুরের আব্দুস সাত্তার মিয়া, পুরান ঢাকার আলমগীর শিকদার লোটন, চাঁদপুরের এমরান হোসেন মিয়া ও নীলফামারীর রানা মোহাম্মদ সোহেল।

বিজ্ঞাপন

নতুন এ ৮ নেতার অন্তর্ভূক্তিতে জাতীয় পার্টির সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য দাঁড়ালো ৫৩ জনে।

সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব পদ থেকে পদত্যাগ করলেও খোকা হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের একজন সাধারণ কর্মী হিসেবে আজীবন জাতীয় পার্টির প্রাথমিক সদস্য পদে বহাল থাকবেন বলে জানান।

জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়ামে নতুন করে ৮ নেতার অন্তর্ভূক্তি সংক্রান্ত সাংগঠনিক নোটিশ

তিনি বলেন: জাতীয় পার্টির জন্মলগ্ন থেকে আমি এ পার্টি করে আসছি। পার্টির বর্তমান নেতৃত্বের ওপর আমার আস্থা নেই। পল্লীবন্ধু এরশাদকে অসুস্থ অবস্থায় একটি মহল পার্টির ভেতর যেভাবে প্রমোশন দিচ্ছে তা মেনে নেয়া যায় না।

লিয়াকত হোসেন খোকা পাশাপাশি দলটির কেন্দ্রীয় কমিটির যুব বিষয়ক সম্পাদক মোঃ বেলাল হোসেন ও যুগ্ম-যুব বিষয়ক সম্পাদক আবু সাঈদ স্বপনও স্বপদ থেকে পদত্যাগ করেছেন।