চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

জনগণের প্রভু নয়, সেবক হতে হবে: আইজিপি

জনগণের প্রভু নয়, সেবক হওয়ার জন্য পুলিশের নবীন কর্মকর্তাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড.মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার বিকেলে পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের সম্মেলন কক্ষে ৩৭তম বিসিএস (পুলিশ) ক্যাডারের সহকারী পুলিশ সুপার পদে নবনিযুক্ত কর্মকর্তাদের ৫ দিনব্যাপী ওরিয়েন্টেশন কোর্সের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ আহ্বান জানান।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭৫ সালে রাজারবাগে প্রথম পুলিশ সপ্তাহের ভাষণে বলেছিলেন, ‘তোমরা জনগণের পুলিশ’, বঙ্গবন্ধুর ভাষণকে উদ্ধৃত করে ড. জাবেদ পাটোয়ারী বলেন: জনগণের প্রভু নয়, তাদের সেবক হয়ে দেশের কল্যাণে নিজেদের নিয়োজিত রাখতে হবে।

বাংলাদেশ পুলিশের একটি গৌরবোজ্জ্বল সমৃদ্ধ অতীত আছে জানিয়ে আইজিপি বলেন: বঙ্গবন্ধুর উদাত্ত আহ্বানে সাড়া দিয়ে তৎকালীন পুলিশের বাঙালি সদস্যরা ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ কালরাতে রাজারবাগে প্রথম সশস্ত্র প্রতিরোধের সূচনা করেন। মুক্তিযুদ্ধে কৃতিত্বপূর্ণ অবদানের জন্য সরকার পুলিশকে স্বাধীনতা পুরস্কারে ভূষিত করেছে। নবীন কর্মকর্তাদেরকে পুলিশ বাহিনীর ঐতিহ্য, সম্মান ও মর্যাদা রক্ষায় পেশাদারিত্বের সাথে দায়িত্ব পালন করতে হবে।

বিজ্ঞাপন

৩৭তম বিসিএস (পুলিশ) ব্যাচে ৮০ জন পুরুষ কর্মকর্তা

তিনি বলেন, বাংলাদেশ পুলিশ সাম্প্রতিক সময়ে জঙ্গি দমনে প্রশংসনীয় অবদান রাখতে সক্ষম হয়েছে। জঙ্গি দমনে বাংলাদেশ এখন বিশ্বে ‘রোল মডেল’। আমরা এখন মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জঙ্গিবাদ, মাদক, সন্ত্রাস ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে ‘জিরো টলারেন্স’ নীতি ঘোষণা করেছেন।

পুলিশ প্রধান বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ‘সোনার বাংলা’ গড়তে চেয়েছিলেন। তারই সুযোগ্য কন্যার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে যুক্ত হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষিত রূপকল্প ২০২১ ও ২০৪১ বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় বাংলাদেশকে সোনার বাংলায় পরিণত করতে হবে।

৩৭তম বিসিএস (পুলিশ) ব্যাচে ১৪ জন নারী কর্মকর্তা

অনুষ্ঠানে নবীন কর্মকর্তা এএসপি হালিমুল আলম ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। ৩৭তম বিসিএস (পুলিশ) ব্যাচে ৯৪ জন পুলিশ কর্মকর্তা যোগদান করেছেন। তাদের মধ্যে ৮০ জন পুরুষ এবং ১৪ জন নারী।

ওরিয়েন্টেশন কোর্সের সমাপনী অনুষ্ঠানে অতিরিক্ত আইজিপি ড. মো. মইনুর রহমান চৌধুরী, অতিরিক্ত আইজিপি মো. শফিকুল ইসলাম ডিআইজি হাবিবুর রহমানসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।