চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

চড়া সুদে আমানত নেয়া বন্ধে অর্থমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চান গভর্নর

ব্যাংকিং খাতে কোন তারল্য সংকট নেই, কাজেই আগ্রাসী হয়ে চড়া সুদে আমানত না নেয়ার জন্য ব্যাংকারদের অনুরোধ জানিয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির।

বিজ্ঞাপন

শনিবার অগ্রণী ব্যাংকের বার্ষিক সম্মেলনে অর্থমন্ত্রীর উপস্থিতিতে এ বিষয়ে হস্তক্ষেপ চেয়েছেন তিনি।

এছাড়া একটি বেসরকারী ব্যাংকে তারল্য সংকটের কারণে পুরো ব্যাংকিং খাতে কিছু মানুষ অস্থিরতা সৃষ্টির সুযোগ খুঁজছে বলেও মনে করছেন তিনি।

অগ্রণী ব্যাংকের বার্ষিক সম্মেলনে অতিথির তালিকা ছিল বেশ লম্বা। উপস্থিত ছিলেন অর্থমন্ত্রী, অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী, বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর, আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব। ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের সদস্যরাও উপস্থিত ছিলেন।

বিজ্ঞাপন

সম্মেলনের শুরুতে ব্যাংকটির নানা সূচক তুলে ধরে প্রধান নির্বাহী শামস উল ইসলাম জানান, রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের মধ্যে কেবল অগ্রণী ব্যাংকে কোন মূলধন ঘাটতি নেই, আমানত সংগ্রহ হয়েছে ভালো, এমনকি প্রায় দ্বিগুণ পরিচালনা মুনাফাও করেছে ব্যাংকটি।

এসবের প্রশংসা জুটেছে তাদের, তবে সার্বিকভাবে ব্যাংকিং খাত নিয়ে উদ্বেগ কম না সরকারের বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির।

সরকারি চাকরিতে পুরষ্কার এবং তিরষ্কার দুটোই সমানতালে চালু করার আহ্বান জানান অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান।

আর খেলাপী ঋণ কমাতে ভালো গ্রাহককে ঋণ দেয়ার পরামর্শ দেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, ২০১৬ সালে অগ্রণী ব্যাংকের লোকসানী শাখা ছিলো ৭৮টি, গত বছর কমে তা ৪৩-এ দাঁড়িয়েছে।