চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘চলচ্চিত্র দিয়ে বাজার কাটতি আমাদের উদ্দেশ্য নয়’

বাঙালি শ্রোতা, দর্শকের রুচি পরিবর্তনে কাজ করছে বেঙ্গল ফাউন্ডেশন। শ্রোতাদের জন্য নিয়মিত উচ্চাঙ্গসংগীতের মহা উৎসব আয়োজন ছাড়াও দর্শকদের জন্য নির্মাণ করছেন মানসম্মত চলচ্চিত্র। তারই অংশ হিসেবে এবার বেঙ্গল ক্রিয়েশনস নির্মাণ করতে যাচ্ছে নতুন চলচ্চিত্র ‘বালিঘর’।

বিজ্ঞাপন

ভারতের সঙ্গে মিলে যৌথপ্রযোজনার এই ছবিটির পরিচালনায় আছেন কলকাতার নির্মাতা অরিন্দম শীল। শনিবার সকাল সাড়ে ১১টায় ছবিটির আদ্যােপান্ত জানাতে হোটেল সোনারগাঁয়ে আয়োজন করা হয় একটি সংবাদ সম্মেলনের। যেখানে উপস্থিত ছিলেন বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান আবুল খায়ের লিটু, নির্মাতা মোরশেদুল ইসলাম, অরিন্দম শীল, বেঙ্গল ক্রিয়েশনসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক লুভা নাহিদসহ ‘বালিঘর’ চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ঠ কলাকুশলীরা। আর এখানেই চলচ্চিত্র নির্মাণের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য নিয়ে কথা বলেন লুভা নাহিদ চৌধুরী।

বহুদিন ধরেই চলচ্চিত্র নির্মাণের প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বেঙ্গল। শুরুর দিকের পথটা এতো সুগম ছিলো না। এমনকি চলচ্চিত্র নির্মাণে এসে শুরুতে টেকনিক্যাল সাপোর্টসহ নানা সমস্যায় ভুগতে হয়েছে। তবে সব সমস্যা কাটিয়ে গত তিন বছরে এখন পর্যন্ত চারটি চলচ্চিত্র নির্মাণ করেছে বেঙ্গল ক্রিয়েশনস, এটাকে বিরাট সাফল্য হিসেবে মনে করেন সংগঠক লুভা নাহিদ।

বেঙ্গল ক্রিয়েশনস-এর ব্যানারে নির্মিত চলচ্চিত্রগুলোর উদ্দেশ্য বাজার কাটতির জন্য নয় জানিয়ে লুভা নাহিদ আরো বলেন, শিল্প সাহিত্য সংগীত ও চলচ্চিত্র নির্মাণের মধ্য দিয়ে আমরা মানুষের রুচিকে প্রভাবিত করতে চাই। চলচ্চিত্র দিয়ে বাজার কাটতি আমাদের উদ্দেশ্য নয়। আমরা জানান দিতে চাই, শিল্প সাহিত্যে আমরা কি ছিলাম, এখন কি আছি, আর কি হতে পারি!

একার প্রচেষ্টায় চলচ্চিত্রকে চাঙ্গা করা কঠিন, তাই সম্মলিত প্রচেষ্টাকে কাজে লাগিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণই পারে গতি ফিরিয়ে আনতে এমনটাই মন্তব্য করেন লুভা নাহিদ। তার মতে, কারো একার প্রচেষ্টায় চলচ্চিত্রের মতো বিশাল একটা ক্ষেত্রকে প্রভাবিত করা কঠিন, তবে আশার কথা হচ্ছে আগের চেয়ে আমাদের চলচ্চিত্রে একটা গতি সঞ্চার হয়েছে। অনেকেই মানসম্মত চলচ্চিত্র নির্মাণে উৎসাহিত হচ্ছেন। অনেক ভালো ভালো সিনেমাও ইদানিং তৈরি হচ্ছে। এভাবে চলতে থাকলে শিগগির এর সুফল পাওয়া যাবে।

চলচ্চিত্র নির্মাণে বেঙ্গল ঠিক পথেই এগুচ্ছে জানিয়ে এই সংগঠক আরো বলেন, মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে আমাদের প্রযোজনার দুটি ছবি অঞ্জন জাহিদুর রহিমের ‘মেঘমল্লার’ এবং মোরশেদুল ইসলামের ‘অনিল বাগচীর একদিন’ জাতীয়ভাবে বেশকিছু স্বীকৃতি অর্জন করেছে। এইটুকুতে বলতে পারি, আমরা ঠিক পথেই এগুচ্ছি।

বেঙ্গল ক্রিয়েশনস ও নাথিং বিয়ন্ড সিনেমার ব্যানারে যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত হচ্ছে ‘বালিঘর’। সংবাদ সম্মেলনে শিল্পী ও কলাকুশলীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিক্রম ঘোষ, নুসরাত ইমরোজ তিশা, কাজী নওশাবা আহমেদ এবং আরিফিন শুভ।

ছবি: তানভীর আশিক