চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ঘরের সাফে মার্জিয়াদের ভরসা দলগত অভিজ্ঞতা

ঘরের মাঠে সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপ। তাতে অংশ নিচ্ছে মাত্র চার দল। দল কম হলেও এতটুকু রঙ হারাচ্ছে না প্রথমবারের মতো মাঠে গড়ানো সাফের অনূর্ধ্ব-১৫ আসর। ঢাকার মাঠে এমন আসরে বাংলাদেশের ভরসা দলগত অভিজ্ঞতা। গত কয়েকদিনে কোচ গোলাম রব্বানি ছোটন আর তার শিষ্যদের কথায় ওই ভরসার কথাই বারবার ফুটে উঠেছে।

স্বাগতিক বাংলাদেশ ছাড়াও টুর্নামেন্ট অংশ নিচ্ছে ভারত, নেপাল ও ভুটান। খেলা হবে রাউন্ড রবিন লিগ পদ্ধতিতে। বল মাঠে গড়াবে ১৭ ডিসেম্বর।

টুর্নামেন্টে ভারতের মতো শক্তিশালী দল থাকলেও বাংলাদেশি মেয়েদের আত্মবিশ্বাস যোগাচ্ছে এএফসি অনূর্ধ্ব-১৪ চ্যাম্পিয়নশিপ। এই টুর্নামেন্টের আঞ্চলিক পর্বের টানা দুবার চ্যাম্পিয়ন ছোটনের ছাত্রীরা। সেপ্টেম্বরে থাইল্যান্ডে এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপে খেলা দলের ১১ জন আছে সাফে।

গত মঙ্গলবার কোচ ছোটন বলেন, ‘বাংলাদেশ তার ঘরের মাটিতেই খেলবে। দলগত অভিজ্ঞতার সঙ্গে মেয়েরা আত্মবিশ্বাস নিয়েই মাঠে নামবে। আমরা বিশ্বাস করি শিরোপা আমরাই জিতবো। মেয়েদের নিয়ে একটা আকর্ষণীয় ফুটবল উপহার দিতে চাই।’

‘টুর্নামেন্ট সামনে রেখে তিন মাস ধরে আমরা প্রস্তুতি নিয়েছি। থাইল্যান্ডে এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপে যে ২৩ জন খেলেছিল, সেই দলের ১১ জন এই দলে আছে। মেয়েরা খেলার মধ্যে আছে। সবাই মেয়েদের ফুটবল নিয়ে মনোযোগী। আমাদের লক্ষ্য প্রতিটি ম্যাচ জিতে চ্যাম্পিয়ন হওয়া।’

১৭ ডিসেম্বর প্রথম ম্যাচে নেপালের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। দ্বিতীয় ম্যাচে খেলবে ভুটানের বিপক্ষে, ১৯ ডিসেম্বর। দুদিন পর ম্যাচ শক্তিশালী ভারতের বিপক্ষে। ২৪ ডিসেম্বর ফাইনাল।