চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

গ্রীসে চলচ্চিত্র উৎসবে আনোয়ার চৌধুরীর ‘বর্ণে বিবর্ণ’

গ্রীসের ‘৫ম এরাপেত্রা আন্তর্জাতিক প্রামাণ্য চলচ্চিত্র উৎসব’-এর ‘আন্তর্জাতিক স্বল্প ও মধ্যম দৈর্ঘ্য প্রতিযোগিতা’ বিভাগে মনোনীত হয়েছে নির্মাতা আনোয়ার চৌধুরীর ছবি ‘বর্ণে বিবর্ণ’। এমনটা জানালেন নির্মাতা নিজেই।

দ্যু সিনেমা-এর প্রযোজনায় ‘বর্ণে বিবর্ণ’ (পেল ইন দ্য কালারস) স্বল্পদৈর্ঘ্য প্রামাণ্য চলচ্চিত্রটি পরিচালনা ছাড়াও সিনেমাটোগ্রাফির কাজও করেন আনোয়ার চৌধুরী নিজেই।

গ্রীসের ক্রিট শহরে আগামী ৪-৯ আগস্ট অনুষ্ঠিত হচ্ছে ‘৫ম এরাপেত্রা আন্তর্জাতিক প্রামাণ্য চলচ্চিত্র উৎসব’। আর এখানেই প্রতিযোগিতা বিভাগে লড়বে ‘বর্ণে বিবর্ণ’।

৭ মিনিট দৈর্ঘ্যের এ চলচ্চিত্রের বিষয়বস্তু নিয়ে নির্মাতা বলেন, পহেলা বৈশাখে, নববর্ষ উদযাপনের উৎসবমুখর পরিবেশে রং ধরা মানুষের ভিড়ে, ফুটপাতে দেখা মিলে যায় এক দরিদ্র মুচি’র। চারপাশের রং যেন মুচি-কে ছোঁয় না, ঢাকতে পারে না তার অসহায় মলিনতাকে। তার ওপর দরিদ্র সে মুচি, যেন উটকো আর বেমানান, একসময় ফুটপাত থেকে উঠে যেতে বাধ্য হয়-এরকমই একটি ছোট্ট মানবিক গল্পকে ঘিরে পর্যবেক্ষণমূলক ও খানিকটা নিরীক্ষাধর্মী এ চলচ্চিত্রটি নির্মিত।

গ্রীসের ক্রিট শহরে অনুষ্ঠিতব্য উৎসবের ‘আন্তর্জাতিক স্বল্প ও মধ্যম দৈর্ঘ্য প্রতিযোগিতা’ বিভাগে আনোয়ার-এর চলচ্চিত্রটি সহ ১০ দেশের ১৬টি চলচ্চিত্র প্রতিযোগিতা করছে। উৎসবে ৫ আগস্ট (রবিবার) আনুষ্ঠানিক প্রদর্শনীর প্রথম দিনেই ‘বর্ণে বিবর্ণ’-এর প্রদর্শনী। এর আরও একটি প্রদর্শনী হবে ৭ আগস্ট।

বর্ণে বিবর্ণ (পেল ইন দ্য কালারস) আনোয়ার চৌধুরী নির্মিত ৬ষ্ঠ স্বল্পদৈর্ঘ্য প্রামাণ্য চলচ্চিত্র। এর মধ্যে জলের শিল্পমঞ্জরী (ওয়াটার ওয়ার্কস) এবং রুদ্ধ কৈশোর (ব্যারেন ড্রিমস) প্রামাণ্য চলচ্চিত্র দু’টি পূর্বে দেশে ও দেশের বাইরে বেশ কয়েকটি জাতীয় ও আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে প্রদর্শিত ও প্রশংসিত হয়।

FacebookTwitterInstagramPinterestLinkedInGoogle+YoutubeRedditDribbbleBehanceGithubCodePenEmail