চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘গানের রাজা’র মঞ্চে হঠাৎ পরী!

শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ৬-১৩ বছরের শিশুদের অংশগ্রহণে সংগীতের মহা-আয়োজন ‘এসিআই এক্সট্রা ফান কেক চ্যানেল আই গানের রাজা পাওয়ার্ড বাই এসিআই পিওর স্পাইসেস’-এর গ্র্যান্ড ফিনালে ছিল। জমকালো এই আয়োজনের স্টেজে হঠাৎ করেই যেন আকাশ থেকে নেমে এলো এক সাদা পরী!

বিজ্ঞাপন

স্টেজে আকাশী আর গোলাপি রঙের ফ্রক পরে নাচছিল ছোট ছোট শিশুরা। এমন সময়ে পেছনের স্ক্রিনে মেঘের মাঝে দেখা মিলে এক পরীর। সাদা পোশাক আর সাদা ডানার সেই পরী একসময়ে নেমে আসে স্টেজে। তিনি রূপকথার পরী নন, বাস্তবেই পরী। এই পরী হলেন জনপ্রিয় নায়িকা পরীমনি। শিশুদের নিয়ে গানের তালে তালে নেচে মাত করেছেন দর্শক-শ্রোতাদের।

পরীমনি ছাড়াও বিভিন্ন জনপ্রিয় গানে পারফর্ম করেন পূর্ণিমা ও রোশান। কোরিওগ্রাফি করেন তানজীল আলম এবং ইভান শাহরিয়ার সোহাগ। এছাড়া প্রতিযোগীদের সঙ্গে গান পরিবেশন করেন এস আই টুটুল, তপন চৌধুরী, আগুন, ডলি সায়ন্তনি, তপু।

চূড়ান্ত পর্বে অতিথি বিচারক ছিলেন উপমহাদেশের জনপ্রিয় সংগীত তারকা কিংবদন্তী কণ্ঠশিল্পী রুনা লায়লা। তার সঙ্গে ছিলেন নিয়মিত আসরের বিচারক ইমরান মাহমুদুল ও সোমনূর মনির কোনাল।

সংগীতের মহোৎসবে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইমপ্রেস টেলিফিল্ম ও চ্যানেল আইয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর, চ্যানেল আইয়ের বার্তাপ্রধান শাইখ সিরাজ, চ্যানেল আইয়ের পরিচালক মুকিত মজুমদার বাবু, এসিআই’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ আলমগীর, সাবেক সংস্কৃতি মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূরসহ দেশের সংগীতাঙ্গগনের বিজ্ঞ অনেকেই।

‘এসিআই এক্সট্রা ফান কেক চ্যানেল আই গানের রাজা পাওয়ার্ড বাই এসিআই পিওর স্পাইসেস’এর চ্যাম্পিয়ন হয়েছে খুলনার ফাইরুজ লাবিবা। সারা দেশের পাঁচ হাজার প্রতিযোগীকে টপকে চ্যাম্পিয়ন হলো লাবিবা। পুরস্কার হিসেবে সে পেয়েছে পাঁচ লাখ টাকা। প্রথম রানার্সআপ হয়ে তিন লাখ টাকা পেয়েছে নেত্রকোনার শফিকুল ইসলাম এবং দ্বিতীয় রানার্সআপ হয়ে দুই লাখ টাকা জিতে নিয়েছে ময়মনসিংহের সিঁথি সরকার। চ্যাম্পিয়নের মাথায় মুকুট পরান প্রখ্যাত সংগীতশিল্পী রুনা লায়লা।