চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

গত চার ঈদে ফ্যামিলির সঙ্গে থাকতে পারিনি: ফারিয়া

তারকার ঈদ ব্যস্ততা:

জাজের বাইরে পা ফেলতে চলেছেন নুসরাত ফারিয়া?

বাংলা চলচ্চিত্রের গ্ল্যামারাস অভিনেত্রী নুসরাত ফারিয়া। দেশের অন্যতম প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়ার হাত ধরে টিভি উপস্থাপক ও মডেল থেকে ২০১৫ সালে সরাসরি চলচ্চিত্রে যার আভির্ভাব। যৌথপ্রযোজনার বাইরে দেশি প্রোডাকশনের সিনেমায় এখন পর্যন্ত দেখা না গেলেও এবার শোনা যাচ্ছে কলকাতার লোকাল প্রোডাকশনের ছবিতে অভিনয় করবেন তিনি। শ্রী ভেঙ্কটেশের প্রযোজনায় চিত্রনায়ক অঙ্কুশের বিপরীতে ‘ডি ফর ডান্স’ নামের একটি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের কথা শোনা যাচ্ছে। এ বিষয় ও আসছে ঈদের ব্যস্ততা জানতেই নায়িকাকে ফোন:

বিজ্ঞাপন

হ্যালো, কেমন আছেন?
ভালো আছি। এখন একটু বাইরে আছি।

কোথায় আছেন?
আমি এই মুহূর্তে একটু ঢাকার বাইরে।

কোনো শুটিং?
না না। কোনো শুটিং না। ব্যক্তিগত কাজে আসছি।

আচ্ছা। কলকাতার লোকাল প্রোডাকশনের একটি সিনেমায় নাকি চুক্তিবদ্ধ হলেন?
একচুয়েলি এটা নিয়ে আমি এখন কথা বলতে চাইছি না। এই মুহূর্তে ছবিটি নিয়ে কথা বলা আমার মানা আছে।

ছবি নিয়ে কথা না বলুন, ছবিতে অভিনয় করছেন এটাতো নিশ্চিত?
সত্যি কথা বলতে কি এই প্রজেক্টটি নিয়ে আগ বাড়িয়ে এখনই কিছু বলতে চাইছি না। আগে সবকিছু বুঝে নেই তারপর ঠিকঠাক বলতে পারবো।

ঈদে কী নিয়ে ব্যস্ততা। ছোট পর্দায়তো নিশ্চয় কোনো প্রোগ্রামে দেখা যাবে?
ঈদে বেশকিছু টিভি চ্যানেলে দেখা যাবে হয়তো আমাকে। তবে এবার ঈদটা ফ্যামিলির সঙ্গে জমিয়ে করতে চাই। কেনো না, শেষ চারটা ঈদ ফ্যামিলির সাথে থাকা হয়নি আমার একেবারেই।

চারটা ঈদ ফ্যামিলির বাইরে শুধু সিনেমার জন্য?
হ্যাঁ। ২০১৫ সালের রোজার ঈদে আমি ‘আশিকি’ ছবির শুটিং করছিলাম। আর কুরবানি ঈদে ছবিটি রিলিজ নিয়ে ব্যস্ত ছিলাম। ২০১৬ সালের রোজার ঈদে আমার ‘বাদশা’ রিলিজ হয়েছে। আর তখন আমি ‘প্রেমী ও প্রেমী’র শুটিং করছিলাম। এবং কুরবানি ঈদেও আমি আমি বিদেশি কাটিয়েছি। তখন বস-২ ছবির শুটিং করছিলাম। তো এরকম ঈদে শুটিংয়ের জন্য চারটা ঈদ ফ্যামিলির সঙ্গে করতে পারিনি। ২০১৭ সালেও একই অবস্থা। ‘বস ২’ রিলিজ হয়েছে ঈদের দিন। এবং কুরবানি ঈদে ‘ইন্সপেক্টর নটি কে’র শুটিং করছিলাম। তো সব মিলিয়ে ২০১৫, ২০১৬, ২০১৭ এই তিন বছরে আগের মতো ফ্যামিলির সঙ্গে ঈদ উদযাপন করা হয়নি। তো অভিনয় জীবনে এবার আমার প্রথম ঈদ যা আমি ফ্যামিলির সাথে সেলিব্রেট করবো।

এবারতো গানেও নাম লেখালেন। প্রচুর বিতর্কও হলো নিজের প্রথম গান নিয়ে। গান নিয়ে নতুন পরিকল্পনা আছে?
আসলে সবকিছু নিয়েই আমার অনেক পরিকল্পনা। আমি যেটা মনে করি, যখন যেটার টাইম আসবে তখন সেটা কাজের মধ্য দিয়ে প্রমান করতে চাই। আর প্রত্যেকটা জিনিষের একটা প্রপার টাইম আছে, আমি যেকোনো কাজের মধ্যে গ্যাপ, একটু স্পেস দিতে পছন্দ করি। যাতে আমি নিজেও দম নিতে পারি এবং আমার দর্শক শ্রোতা ও সমালোচকরাও দম নিতে পারেন।

দীর্ঘদিন পর পরিবারের সাথে ঈদ করবেন এবার। বিশেষ পরিকল্পনা আছে নিশ্চয়?
ইয়েস! শপিং নিয়ে বিরাট পরিকল্পনা আছে। যেহেতু গত তিন বছর ধরে ফ্যামিলির সাথে ঈদ করতে পারছি না, তাই এবার প্রচুর শপিং করবো। পুরনো দিনের মতো প্রচুর জামা কিনবো নিজের জন্য। ঈদের প্রথম দিন থেকে সাতদিন উদযাপন করবো। ইভেন ঈদের পর পরই ফ্যামিলির সঙ্গে এবার দেশের বাইরে ঘুরতে যাওয়ারও প্ল্যান আছে। এবারের ঈদটা সত্যিই আমার জন্য একটু স্পেশাল, পরীক্ষাও শেষ হয়েছে। মনে হচ্ছে স্কুল, কলেজ জীবনে পরীক্ষা শেষে ঈদের ছুটির পাওয়ার মতো।

গুড লাক…
ধন্যবাদ…

ছবি: নুসরাত ফারিয়ার ফেসবুক থেকে সংগৃহিত