চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘গতি কম’ তাতে কী!

খুব জোরে বল না করেও সফল হওয়ার অন্যতম দৃষ্টান্ত মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা। দেড়যুগ ধরে বাংলাদেশের সেরা পেসার তিনি। পেস বোলিং অলরাউন্ডার হিসেবে ওয়ানডে দলে পায়ের তলায় মাটি খুঁজে পাওয়া মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনও আহামরি গতিতে বল ছোঁড়েন না। তাতে অবশ্য সমস্যা দেখছেন না এ তরুণ। সঠিক লাইন-লেন্থ আর সুইং দিয়ে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে ভালো করার আশা তার।

বিজ্ঞাপন

ইংল্যান্ডের উইকেট এমনিতেই ব্যাটিং সহায়ক। আর বিশ্বকাপ আসরে সেখানকার মাঠের ২২ গজ ভূমি হবে রানের জন্য উর্বর। তাতে মিডিয়াম পেসারদের চ্যালেঞ্জ বাড়বে, এমনটাই ধারণা করা হচ্ছে। তবে এ চ্যালেঞ্জে জয়ী হওয়ার ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী সাইফউদ্দিন।

‘আসলে চাপের কিছু নেই। মাশরাফী ভাই সবসময় বলে, যে যত বেশি আত্মবিশ্বাসী থাকবে সে-ই ভালো করবে। আমরা কাগিসো রাবাদাদের মতো ১৫০ (কিমি গতি) এ বল করতে পারব না। আমরা ১৩০ এর ঘরে লাইন-লেন্থ মেপে, সুইং করাতে পারি তাহলে অবশ্যই ভালো কিছু আশা করা যায়।’

বিজ্ঞাপন

‘আইসিসি ইভেন্টে উইকেট একটু ব্যাটিং সহায়ক হয়। ৩০০ বা ২৯০ এমন রান হয়। আর খেলেছি ঠিক আছে, একই আবহাওয়া, একই কন্ডিশন, কিন্তু প্রতিপক্ষ আলাদা ছিল। কিছুটা হলেও চ্যালেঞ্জিং হবে। যেহেতু বিশ্বের সব সেরা ব্যাটসম্যানরা খেলবে। তবে এই চ্যালেঞ্জটা নিতে প্রস্তুত আমি।’

নিউজিল্যান্ড সফরে ওয়ানডে সিরিজে আস্থার প্রতিদান দেয়া সাইফউদ্দিন ঢাকা প্রিমিয়ার লিগেও খেলছেন দুর্দান্ত। ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন আবাহনীর আকাশী-নীল জার্সি জড়িয়ে সাত ম্যাচ নিয়েছেন ১০ উইকেট। ব্যাট হাতে ছয় ইনিংসের তিনটিতে পেয়েছেন ফিফটি। অপরাজিত ছিলেন তিন ম্যাচে।

ফর্মে থাকা সাইফউদ্দিন অপেক্ষায় বিশ্বকাপ খেলে স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দিতে। আর বিশ্বমঞ্চে নিজের ব্যাটিং-বোলিং নিয়ে পরিকল্পনা আঁটতে চান স্বপ্নের স্কোয়াডে নামটা লেখা হলেই। এখনকার ভাবনা কেবল প্রিমিয়ার লিগ নিয়ে।

‘প্রত্যেক ক্রিকেটারের স্বপ্ন থাকে বিশ্বকাপে খেলার। যদি সুযোগ পাই অবশ্যই আমারও স্বপ্নপূরণ হবে। পাশাপাশি ইংল্যান্ডের কন্ডিশন, নিজেকে প্রমাণ করার জন্য ভালো মঞ্চ বিশ্বকাপ। বিশেষ করে আমরা যারা জুনিয়র খেলোয়াড় তাদের জন্য। ভালো করলে সামনে আরও ভালো সুযোগ আসবে। চেষ্টা করব নিজের শতভাগ দেয়ার।’

‘সত্যি বলতে এমন কিছুই (বিশ্বকাপ পরিকল্পনা) আমার মাথায় কাজ করছে না। আপাতত আমি ডিপিএলের ম্যাচগুলো নিয়ে চিন্তা করছি। যখন স্কোয়াড ঘোষণা হবে, যখন বিশ্বকাপের টিকেট হাতে পাব, তখন চিন্তা করব।’