চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

খাশোগি হত্যার অভিযোগ ভিত্তিহীন: সৌদি আরব

তুরস্কের সৌদি কনস্যুলেটে সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যার অভিযোগকে ‘মিথ্যা এবং ভিত্তিহীন’ বলে দাবি করেছে সৌদি আরব।

বিজ্ঞাপন

দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী প্রিন্স আব্দুল আজিজ বিন সৌদ বিন নাইফ বিন আব্দুল আজিজ অভিযোগ অস্বীকার করে দাবি করেন, শেষ ১১ দিন আগে খাশোগিকে সৌদি কনস্যুলেটে আসতে দেখা গেছে।

তুরস্কের দাবি, তাদের কাছে অডিও এবং ভিডিও আছে, যাতে প্রমাণ রয়েছে কনস্যুলেটের ভেতরেই খাশোগিকে হত্যা করা হয়েছে।

বিবিসিকে দেয়া এক বিবৃতিতে তুরস্কের নিরাপত্তা বাহিনী জানায়, খাশোগি ইস্তাম্বুলের সৌদি কনস্যুলেট থেকে বেরিয়েছিলেন তার প্রমাণ দিয়ে সৌদি আরবকে সিসিটিভি ফুটেজ এবং অডিও প্রকাশ করতে হবে।

বিজ্ঞাপন

খাশোগি গত ২ অক্টোবর তার প্রেমিকাকে বাইরে দাঁড় করিয়ে রেখে ইস্তানবুলের সৌদি কনস্যুলেটে ঢোকার পর আর বের হননি। সৌদি আরব বলছে, কিছুক্ষণ পরই খাশোগি বেরিয়ে যান। কিন্তু বাইরে থাকা খাশোগির প্রেমিকা ও তুর্কি কর্মকর্তারা বলছেন, তিনি আর বেরিয়ে আসেননি।

তুরস্ক বলছে, খাশোগিকে সৌদি কনস্যুলেট ভবনের ভেতরে হত্যা করার পর তার লাশ সরিয়ে ফেলা হয়েছে। তবে রিয়াদ এ অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান বলেন, এমন একটি ঘটনার পর আমাদের পক্ষে নিশ্চুপ থাকা সম্ভব নয়।  কারণ ঘটনাটি সাধারণ কোনো ব্যাপার নয়।

এরই মধ্যে খাশোগির নিখোঁজ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ। বিশ্বের শীর্ষ সংস্থাটির মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেসের মুখপাত্র বলেছেন, তার নিখোঁজ নিয়ে আমাদের কাছে নিরপেক্ষ কোনো তথ্য নেই।

অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প  নিখোঁজ হওয়ার বিষয়ে সৌদি আরবের কাছে ব্যাখ্যা দাবি করেছেন।

তুরস্কের সাবাহ পত্রিকার খবরে বলা হয়, তারা খাশোগির অন্তর্ধানের ঘটনায় জড়িত একটি গোয়েন্দা টিমের ১৫ সদস্যকে চিহ্নিত করেছে।