চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

খালেদার বিচারে কেরানীগঞ্জ কারাগারে অস্থায়ী আদালত

আইন মন্ত্রণালয়ের গেজেট

নিরাপত্তার কারণে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে চলমান মামলাগুলোর বিচার কাজ ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এ জন্য কেরানীগঞ্জে কেন্দ্রীয় কারাগারের সামনে নবনির্মিত দুই নম্বর ভবনকে অস্থায়ী আদালত ঘোষণা করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

সোমবার নতুন অস্থায়ী আদালতের প্রজ্ঞাপন জারি করে আইন মন্ত্রণালয় জানায়, নাজিমুদ্দিন রোডে পুরাতন কেন্দ্রিয় কারাগারের প্রশাসনিক কক্ষে অস্থায়ী আদালতে খালেদা জিয়ার যেসব মামলার বিচার কার্যক্রম চলছিল, তার পরিবর্তে ঢাকা কেন্দ্রিয় কারাগারের সামনে নবনির্মিত দুই নম্বর ভবনকে অস্থায়ী আদালতে চলবে। 

গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫ তার রায়ে খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড এবং তার বড় ছেলে ও বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমান, সাবেক সাংসদ কাজী সালিমুল হক কামাল, সাবেক মুখ্য সচিব কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী, ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদ ও মমিনুর রহমানকে ১০ বছর করে কারাদণ্ড দেন।

সেই সাথে খালেদা জিয়াসহ ছয় আসামির সবাইকে মোট ২ কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৪৩ টাকা ৮০ পয়সা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়।

বিচারিক আদালতের এ রায় ঘোষণার পরই খালেদা জিয়াকে কারাগারে নেয়া হয়। পরে রায়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আপিল করেন খালেদা জিয়া।

গত ৩০ অক্টোবর আপিলে খালেদা জিয়ার সাজা বাড়িয়ে ১০ বছরের কারাদণ্ড দেন হাইকোর্ট।