চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

খামারে গিয়ে আর ফিরলেন না ব্যবসায়ী মোক্তার

নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলায় জমি সংক্রান্ত বিরোধ ও পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মোক্তার হোসেন (৪৫) নামের এক ব্যবসায়ীকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।

নিখোঁজের চারদিন পর বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার কাজীবাড়ি এলাকায় একটি পরিত্যক্ত ড্রাম থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত মোক্তার হোসেন ওই এলাকার মৃত হাজী আবুল হাশেমের ছেলে। তিনি নিজের মৎস্য খামারের ও কৃষি জমিতে ফসলের ব্যবসা করতেন। তার স্ত্রী, তিন মেয়ে ও এক ছেলে সন্তান রয়েছে।

নিহতের স্বজনরা জানান, মোক্তার হোসেন ১৬ ডিসেম্বর রাত দশটায় এলাকায় নিজের মাছের খামারে যাওয়ার কথা বলে বাসা থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হন এবং এরপর থেকে তার মোবাইল ফোন বন্ধ থাকে। রাতে মোক্তার হোসেন বাসায় ফিরে না এলে তার স্ত্রী শিল্পী বেগম পরদিন ১৭ ডিসেম্বর সকালে এ ব্যাপারে বন্দর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

‘এরপর মাছের খামারসহ বিভিন্ন স্থানে খোঁজ করেও তার কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি। পুলিশ নিখোঁজের বিষয়টি তদন্ত শুরু করলেও মোক্তার হোসেনের মোবাইল ফোন বন্ধ থাকার কারনে তার অবস্থান জানা যায়নি।

বৃহস্পতিবার সকালে কাজীপাড়া এলাকায় তার বাড়ির পাশে রাস্তায় একটি পরিত্যক্ত ড্রাম থেকে পঁচা দুর্গন্ধ ছাড়ালে স্থানীয়রা থানা পুলিশকে জানায়। পরে পুলিশ গিয়ে ড্রামের ভেতর থেকে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় মোক্তার হোসেনের ক্ষতবিক্ষত লাশ উদ্ধার করে।

এরপর স্বজনরা এসে লাশ শনাক্ত করলে পুলিশ ময়না তদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।’

নিহতের স্বজনরা এ হত্যাকাণ্ডের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।  নিহতের গলায় ও শরীরের আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। পুলিশের ধারণা, তাকে শারিরীক নির্যাতনের শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে বন্দর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: আজহারুল ইসলাম সরকার জানান, এ হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের শনাক্ত করে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। পরিবারের স্বজনদের পক্ষ থেকে হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান তিনি।

FacebookTwitterInstagramPinterestLinkedInGoogle+YoutubeRedditDribbbleBehanceGithubCodePenEmail