চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কান-নেটফ্লিক্স দ্বন্দ্বে অনিশ্চয়তায় ‘দ্য আইরিশম্যান’

নেটফ্লিক্সের সিনেমা হওয়ায় রবার্ট ডি নিরো ও আল পাচিনো অভিনীত মার্টিন স্করসিসের ‘দ্য আইরিশম্যান’-এর কান যাত্রা নিয়ে আলোচনা তুঙ্গে…

কান ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল আর নেটফ্লিক্সের মধ্যে বনিবনা হচ্ছেই না। গতবছর কান চলচ্চিত্র উৎসবে নেটফ্লিক্সের সিনেমা দেখানোর অনুমতি দেয়া হয়নি। শোনা যাচ্ছে এবছরেও একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হবে। ফলে ফেস্টিভ্যাল থেকে বাদ পড়বে বড় নির্মাতাদের তৈরি দারুণ কিছু সিনেমা।

বিজ্ঞাপন

মার্টিন স্করসিসের ‘দ্য আইরিশম্যান’, স্টিভেন সডারবার্গের ‘দ্য লনড্রোম্যাট’, ডেবিড মাইকডের ‘দ্য কিং’, দ্য সাফডাই ব্রাদার্স এর ‘আনকাট জেমস’ এবং নোয়া বামবাচ-এর একটি নামহীন জনপ্রিয় সিনেমা কানে প্রদর্শিত হবে না।

এরমধ্যে রবার্ট ডি নিরো এবং আল পাচিনো অভিনীত ‘দ্য আইরিশম্যান’ নিয়ে চলছে আলোচনা। ছবিটি নেটফ্লিক্সের না হলে খুব সহজেই কান মাতাতে পারতো।

‘দ্য আইরিশম্যান’-এর চিত্রনাট্য লিখেছেন স্টিভেন জাইলিয়ান। চার্লস ব্র্যান্ডটের উপন্যাস ‘আই হেয়ার্ড ইউ পেইন্ট হাউস’ অবলম্বনেই এই সিনেমার কাহিনী, যাতে তুলে ধরা হয়েছে হিটম্যান ফ্র্যাঙ্ক ‘দি আইরিশম্যান’ শিরানের জীবন।

ভ্যারাইটির রিপোর্ট অনুযায়ি কান-এর ডিরেক্টর থিয়েরি ফেমাক্স ‘দি আইরিশম্যান’ ছবিটি কানে প্রদর্শনের জন্য স্করসিসের সঙ্গে বৈঠক করে উপায় খুঁজছেন। এই তারকাবহুল ছবি কান ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল থেকে বাদ দিতে চান না তিনি। এর আগের বছর আলফনসো কুয়ারনের ‘রোমা’ বাদ পড়েছিল। অথচ ছবিটি একাধিক অস্কার জিতেছে।

স্করসিসের সঙ্গে কান-এর সম্পর্কটাও দারুণ। এর আগে ‘ট্যাক্সি ড্রাইভার’ ছবির জন্য পাম ডিওর (কানের সর্বোচ্চ পুরস্কার)  জিতেছিলেন তিনি। এছাড়াও ২০০২ সালে তিনি ‘গ্যাংস অব নিউ ইয়র্ক’ দেখিয়েছিলেন কান উৎসবে। ছবিটি তখনও অসমাপ্ত ছিল।

কান এবং নেটফ্লিক্সের সংঘাত শুরু হয় ২০১৭ সালে। বং জুন-হুর ওকজা ও নোয়াহ বোমবাকের ‘দ্য মায়োরিদজ স্টোরিজ’ নিয়ে বিতর্কের শুরু। কান উৎসবে অংশ নিয়েছিল নেটফ্লিক্সের এই দুটি সিনেমা। নেটফ্লিক্সের সিনেমা অংশ নেয়ায় ফরাসি সিনেমা পরিবেশকদের মধ্যে তীব্র অসন্তোষের জন্ম দিয়েছিল।

তাদের বক্তব্য ছিল, থিয়েটারে মুক্তি না পাওয়া সিনেমা কান-এ অংশ নিতে পারবে না। তাদের চাপে নেটফ্লিক্সের সিনেমা কানে প্রদর্শনের সুযোগ দেয়া হয়নি। পরে ২০১৮তে নিয়ম করা হয়, কান উৎসবে অংশ নিতে হলে সিনেমাটি ফ্রান্সের থিয়েটারে মুক্তি দিতে হবে। ফলে নেটফ্লিক্স এবং কান-এর মধ্যের দন্দ্বের কোনো সমাধান হয়নি এখনও। -ইন্ডি ওয়্যার