চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

এবার শোধরাবেন সাব্বির?

ঘরোয়া লিগের খেলা চলাকালে কিশোর দর্শককে পিটিয়ে ৬ মাস ঘরের ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ হওয়া সাব্বির রহমান এবার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেও একই মেয়াদে নিষিদ্ধ হচ্ছেন। ফেসবুকে দুই ভক্তকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ এবং হুমকি দেয়ার কারণে আগামী ছয় মাস এ ব্যাটসম্যানকে দেখা যাবে না বাংলাদেশের জার্সিতে।

বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের বৃহস্পতিবারের বক্তব্যেই ইঙ্গিত মিলেছিল, বড় শাস্তির হতে যাচ্ছে সাব্বিরের। অপেক্ষা ছিল সাব্বিরের বক্তব্য শোনার। শনিবার বিসিবির ডিসিপ্লিনারি কমিটির কাছে সাব্বির ভক্তকে হুমকি দেয়ার বিষয়টি অস্বীকার করলেও দিনের আলোর মতোই তা সত্যি।

যে কারণে সাব্বিরকে ৬ মাস নিষিদ্ধের সুপারিশ করেছে বিসিবির ডিসিপ্লিনারি কমিটি। বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের কাছে পাঠানো হচ্ছে শাস্তির ফাইল। তিনি সই করলেই শাস্তির দিন গণনা শুরু হয়ে যাবে।

বড় শাস্তি হচ্ছে। এবার নিজেকে শোধরাবেন সাব্বির?
দর্শক পেটানো ও আম্পায়ারকে হুমকি দিয়ে বিসিবির কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে বাদ পড়ার পাশাপাশি ঘরোয়া ক্রিকেটে নিষিদ্ধ হয়েছিলেন ৬ মাস এবং জরিমানা দিয়েছেন ২০ লাখ টাকা। এমন শাস্তি পাওয়ার পর অনেকে ভেবেছিলেন প্রতিশ্রুতিশীল এ ব্যাটসম্যান হয়ত নিজেকে শুধরে নেবেন। কিন্তু কিসের কী, হয়েছে উল্টোটা!

গত তিন বছরে সাব্বিরের নামে অভিযোগের পাহাড় জমে গিয়েছিল বিসিবিতে। বেশিরভাগই নারীঘটিত ব্যাপার। শনিবার বিসিবি অবশ্য ছয় মাস নিষিদ্ধের সুপারিশ করেছে শুধু ফেসবুকে হুমকি দেয়ার কারণে। বোর্ডের কর্তৃত্বশীল একটি সূত্রে জানা গিয়েছিল, সাব্বিরকে ৩ বছর নিষিদ্ধ করার আলোচনাও হয়েছিল বৃহস্পতিবার বিসিবির জরুরী সভায়।

কেবল দর্শকের সঙ্গে বাজে ব্যবহারই নয়, আরও কিছু অভিযোগ ছিল তার নামে। যার কিছুটা স্বীকার করেছেন বলে জানালেন বিসিবি পরিচালক ইসমাইল হায়দার মল্লিক, ‘সাব্বির বলেছে ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়েছিল। বাকি কার্যকলাপের বিষয়ে সে কিছু বিষয় স্বীকার করেছে। ওই বিষয়ে তাকে নির্দেশনাও দেয়া হয়েছে। সে অনুতপ্ত। ভবিষ্যতে এরকম কিছু করবে না বলে প্রতিজ্ঞা করেছে।’

শাস্তি নির্ধারণ প্রক্রিয়া সম্পর্কে জানতে চাওয়া হলে বিসিবির এ পরিচালক বলেন, ‘আজকে সাব্বিরের শুনানি ছিল ফেসবুকের ঘটনাটার কারণে। তার আগের শাস্তি তো এখনো চলছে; ডোমেস্টিকে নিষিদ্ধের। এখন নতুন যা হল, তা ফেসবুকের জন্য; এরজন্য তিন বছরের শাস্তি আসলে অধিক হয়ে যায়। তার আগের নানা কারণের জন্য শাস্তি তো তাকে দেয়াই হয়েছিল। এটা নতুন ঘটনার কারণে।’

FacebookTwitterInstagramPinterestLinkedInGoogle+YoutubeRedditDribbbleBehanceGithubCodePenEmail