চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

এবার বলবেন আর্জেন্টিনার মেসি

একটা মানুষ নিজের দেশের পক্ষে (যদিও যৌথভাবে গাব্রিয়েল বাতিস্তুতার সঙ্গে) সবচে বেশি গোল (৫৪টি) এবং সবচে বেশি হ্যাটট্রিক (৪টি) করেছেন। তারপরও লিওনেল মেসিকে শুনতে হয় তিনি নাকি দেশের চেয়ে ক্লাবের জন্য বেশি দরদি। শুধু তাই কি? কাটা ঘায়ে নুনের ছিটে হয়ে কিছু দিন পর পর আরেক আর্জেন্টাইন ফুটবল লিজেন্ড দিয়েগো ম্যারাডোনাও মেসিকে ধুয়ে দেন সমালোচনার বন্যায়। তাতে অবশ্য একটুও ভ্রুক্ষেপ নেই আর্জেন্টাইন ফুটবল অধিনায়কের। মাঠের মতো রেকর্ড বইয়ের পাতায়ও তিনি ছুটছেন দাপটের সঙ্গেই। আর্জেন্টিনাকে বড় কোন আসরের শিরোপা এনে দিতে না পারা পর্যন্ত হয়তো তাকে শুনে যেতেই হবে এতোসব অপবাদ।

বিজ্ঞাপন

ভক্তদেরইবা দোষ কি, দেখতে দেখতে তো আর কম হলো না। সেই ২০০৬ ফিফা বিশ্বকাপ দিয়ে শুরু। এরপর ২০০৭ এ কোপা আমেরিকা, ২০১০ ফিফা বিশ্বকাপ, ২০১৪ ফিফা বিশ্বকাপ এবং ২০১৫তে কোপা আমেরিকার ফাইনাল পর্যন্ত গিয়েও ট্রফিতে হাত দিতে না পারার যন্ত্রণা কি এতো সহজে ভোলার। মেসিও কি কম আক্ষেপে পুড়ছেন নিজের ভিতরে ভিতরে।

যা হোক, এবারের কোপা আমেরিকা সেন্টেনারিওতে বড় কিছু করতে মনেপ্রাণের চেষ্টায় রয়েছেন নাম্বার টেন। লড়াই চলছে ইনজুরির সঙ্গেও। তারপরও লড়তে হবে দেশের জন্য। তিনিও জানেন আর্জেন্টিনার জন্য কিছু করতে হলে তাকে যে নেতৃত্বে থাকতে হবে সবার সামনে। পারবেন কি লিওনেল মেসি? উত্তর জানা যাবে এ সপ্তাহেই। তার আগে ফ্ল্যাসব্যাকে একনজরে দেখে নেয়া যাক আর্জেন্টিনার জার্সি পড়ে মেসির আন্তর্জাতিক গোলগুলো।

বিজ্ঞাপন