চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

একজন সুরকারিগর, আরেকজন মূর্তিকারিগর

বইমেলায় ‘মূর্তিকারিগর’-এর অনানুষ্ঠানিক আড্ডায় শহীদ আলতাফ মাহমুদ কন্যা শাওন মাহমুদ

‘মূর্তিকারিগর’ লেখক নিজেই প্রশ্নকর্তা, ‘একজন শহীদ আলতাফ মাহমুদের কন্যা শাওন মাহমুদ ফেব্রুয়ারিতে কিভাবে নিজেকে আবিস্কার করেন প্রতি মুহুর্তের ‘আমার ভায়ের রক্তে রাঙ্গানো একুশে ফেব্রুয়ারি গানটি শুনে?

অন্যদিকে কত্থকের প্রশ্ন ‘চাষী’ কিংবা শহীদ কন্যা শাওন মাহমুদকে, ‘‘মূর্তিকারিগর’ বাদল তথা সত্যিকারের চরিত্র রশীদের সঙ্গে কোথাও কি মেলে শহীদ আলতাফ মাহমুদের?’

অমর একুশে বইমেলার সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অংশে ৫৯০ স্টলের সামনে প্রথাগত আড্ডার ভঙ্গিতে থাকা শাওন মাহমুদ আবেগে ভেসে যেতে চেয়েও না ভেসে বলেন, ‘আমি প্রতিমুহুর্তে শহীদ আলতাফ মাহমুদকে পাই। কেবল ফেব্রুয়ারিতে না। তার সুরে-তার স্বদেশপ্রেমে কিংবা তার প্রেমিক-স্বামী-পিতৃত্বসত্বায় প্রতি মুহুর্তে আমি নিজেকে লড়াইয়ের ময়দানে আবিস্কার করি আমি।’

দ্বিতীয় প্রশ্নের জবাবে শাওন মাহমুদ বলেন, ‘শহীদ আলতাফ মাহমুদ বুদ্ধিজীবী নন। সুরকারিগর। তৃণমূলের সাংস্কৃতিক এবং মাঠের যোদ্ধা। শহীদ আলতাফ মাহমুদ এবং মূর্তিকারিগর বাদল তথা রশিদ, দুজনে অনেকটেই এক। একজন সুরকারিগর, আরেকজন মূর্তিকারিগর। দুজনই দেশকে ভালোবেসে কোন কিছু না পাওয়ার আশায় জীবন বিলি করে দেশরে স্বাধীনতায়। তারা বুদ্ধিজীবী নন স্বদেশের স্বাধীনতার নিঃশব্দ সাংস্কৃতিক কারিগর।’

শনিবার বিকালে অমর একুশে বইমেলায় প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান আবিস্কারের স্টলের সামনে অনানুষ্ঠানিক আড্ডা জমে ওঠে। বিষয় জাহিদ নেওয়াজ খানের প্রথম উপন্যাস ‘মূতিকারিগর’ এর ওপর কিছু সময়ের আলোচনা।

লেখক জাহিদ নেওয়াজ খান আলোচনায় জানান, ‘দুই বছর আগে ফেসবুকের এক পোস্টের মাধ্যমে ময়মনসিং জিলা স্কুলের শিক্ষার্থী রশিদের খোঁজ পান। যিনি মূর্তিকারিগর ছিলেন। যাকে ২ এপ্রিল হত্যা করেছিল স্বাধীনতাবিরোধীরা। রশীদ তাকে পেয়ে বসে। নিজ স্কুলের শহীদের খোঁজ করে তিনি রশীদ চরিত্রের আদলে বাদলকে তৈরী করে গল্পের শরীরে নিজ কল্পনার মাংস জুড়ে তৈরী করেন ‘মূর্তিকারিগর’। যেখানে রশিদের সৃজন আর মৃত্যুটাই সত্য। বাকী সব লেখকের একান্ত কল্পনা। মা, সন্ধ্যাদি, বড় ভাই সব তার নিজস্ব সৃজন।’

দুজনের আলোজনা শেষে অনানুষ্ঠানিকভাবে ‘মূর্তিকারিগর’ এর অনানুষ্ঠানিক প্রতীকী মোড়ক উন্মোচন করেন শহীদ কন্যা শাওন মাহমুদ। যা ‘মূর্তিকারিগর’ এর ওজন আর গুরুত্ব বাড়িয়ে দেয় নিমেষে।

অনানুষ্ঠানিক আলোচনা ও মোড়ক উন্মোচনে আরো উপস্থিত ছিলেন প্রকাশনা সংস্থা আবিস্কার এর কর্ণধার দেলোয়ার হোসেন, চ্যানেল আই অনলাইনের ইনপুট এডিটর ফাহমিদা আক্তার শিলা, মাজেদা খানম বিথী প্রমুখ।

FacebookTwitterInstagramPinterestLinkedInGoogle+YoutubeRedditDribbbleBehanceGithubCodePenEmail