চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

উপজেলা নির্বাচন: গোপালগঞ্জে ইউএনও অফিস ভাংচুর

গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার সম্মেলন কক্ষে হামলা চালিয়ে চেয়ার, টেবিল, গ্লাস ও জানালা-দরজা ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে।

বিজ্ঞাপন

রোববার সদর উপজেলার ২১টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার ১২৩টি ভোটকেন্দ্রের নিবাচনী ফলাফল ঘোষণার সময় এ হামলা ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছে, রোববার রাতে সদর উপজেলার ২১টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার ১২৩টি কেন্দ্রের নিবাচনী ফলাফল ঘোষণাকালে পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী মাহামুদ হোসেন দিপুর এক সমর্থক একটি কেন্দ্রের ফলাফল হাতে নিয়ে উপজেলা সম্মেলন কক্ষে প্রবেশ করেন।গোপালগঞ্জ-ইউএনও অফিস ভাংচুরের ঘটনা

বিজ্ঞাপন

তিনি ফল ঘোষণাকারী উপজেলা ইউএনও’কে উদ্দেশ্য করে বলতে থাকেন, ‘আপনার ফলাফল ঘোষণার সাথে একটি কেন্দ্রের ফলাফলের কোনো মিল নেই। আপনি ফলাফল নিয়ে চরম দুর্নীতি ও পক্ষপাতিত্ব করছেন।’

এ সময় একই অভিযোগ করেন বিজয়ী ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী নিতিশের সমর্থকরা। এ নিয়ে একে অপরের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়। এরপর দু’পক্ষই হামলা চালিয়ে সম্মেলন কক্ষের জানালা, দরজা, চেয়ার, টেবিলসহ বিভিন্ন আসবাবপত্র ভাংচুর করে।গোপালগঞ্জ-ইউএনও অফিস ভাংচুরের ঘটনা

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার পর পুনরায় নির্বাচনী ফল ঘোষণা শুরু হয়।

ক্ষতিগ্রস্তদের দাবি, হামলা চালিয়ে ভাংচুরকারীরা সবাই-ই সরকার দলীয় লোকজন।