চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ঈদের পূর্বে ব্যস্ত ঢাকা

ঈদের ছুটি শুরুর সপ্তাহখানেক আগে থেকেই ব্যস্ত রাজধানীর বাস কাউন্টারগুলো। ঝঞ্ঝাট এড়াতে অনেকেই পরিবারের সদস্যদের আগেভাগেই গ্রামের বাড়ি পাঠিয়ে দিচ্ছেন। বাস কোম্পানিগুলো বলছে, ঈদের আগাম টিকেটের ৭৫ শতাংশ এরই মধ্যে বিক্রি হয়ে গেছে। রাজধানীর শপিংমলগুলো মাঝরাতেও ব্যস্ত ঈদ কেনাকাটায়। যানজট ও ভিড় এড়াতে পরিবার পরিজন নিয়ে গভীর রাত পর্যন্ত কেনাকাটা করছেন বহু মানুষ।

রাজধানীর কর্মব্যস্ততা ছেড়ে ছুটিতে পরিবার পরিজন নিয়ে গ্রামে যাওয়ার সবচে বড় উপলক্ষ ঈদ। ঝঞ্ঝাট এড়াতে অনেকেই পরিবারের সদস্যদের গ্রামের বাড়ি পাঠিয়ে দিচ্ছেন ঈদের ছুটি শুরু হওয়ার সপ্তাহখানেক আগেই।

তেমনই একজন যাত্রী জানান, আগেই ফ্যামিলিকে গ্রামের বাড়িতে পাঠাচ্ছি। কিন্তু কালকে আমি ফিরে এসে আবার অফিস করবো। ঈদের আগের দিন যাবো।

বাস কাউন্টারগুলো বলছে, রাস্তার পরিস্থিতি এখনো স্বাভাবিক। সামনের দিনগুলোতে হাইওয়ে পুলিশ বড় সড়কে কোনো গাড়ি বা ট্রাককে থামতে না দিলে যানজট হওয়ার সম্ভাবনা কম। ঈদের আগাম টিকিটের বেশিরভাগই বিক্রি হয়ে গেছে বলেও জানাচ্ছে বাস কোম্পানিগুলো।

তিন তারিখ থেকে টিকিট বিক্রি শুরু করার কথা উল্লেখ করে টিকিট বেচাকেনা প্রায় শেষ বলে জানান বাস কাউন্টারের সেলস এক্সিকিউটিভ।

রাস্তাঘাট জ্যাম থাকলে বাড়তি গাড়ি দিতে নিজেদের অপারগতার কথা জানান বাস কাউন্টার মাস্টার। তিনি বলেন, জ্যাম না থাকলে হয়তো বা যেইসব যাত্রী যাওয়ার ব্যাপারে আমাদের চিন্তাভাবনা  মনে হয় আমরা ফুলফিল করতে পারবো।

ঈদের আগে ব্যস্ত রাজধানীর শপিং মলগুলো। মধ্যরাতেও শপিংমল ও মার্কেটগুলোতে মানুষের ভিড়। মাঝরাতের আচমকা বৃষ্টি ঘরে ফেরা রাজধানীবাসীকে কিছুটা ভিজিয়ে দিলেও আনন্দকে কমাতে পারেনি।

একজন নারী ক্রেতা জানান, মধ্যরাত পর্যন্ত খোলা আছে মার্কেটগুলা। এটাই আমাদের জন্য অনেক সুবিধা। নিরাপত্তাগত বা অন্যান্য কোন সমস্যা নেই বলেও তিনি জানান। মিড নাইটে শপিং, খাওয়া দাওয়াকে নতুন অভিজ্ঞতা হিসেবে উল্লেখ করেন একজন কমবয়সী ক্রেতা।

নিরাপদে বাড়ি ফেরা, আনন্দময় শপিং সবকিছুই যেনো প্রহর গুনছে ঈদ উদযাপনের।

FacebookTwitterInstagramPinterestLinkedInGoogle+YoutubeRedditDribbbleBehanceGithubCodePenEmail