চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ই-কমার্সের ওপর ভ্যাট আরোপ অযৌক্তিক মনে করছে আইটি সংগঠনগুলো

ই-কমার্সের ওপর শতকরা ৭.৫ ভাগ ভ্যাট আরোপ যৌক্তিক মনে করছে না বেসিস এবং আইটি অ্যাসোসিয়েশনস। অনলাইন কনজুমার বাড়াতে উদীয়মান এ সেক্টরকে আগামী ৫ বছরের জন্য ভ্যাটের আওতামুক্ত রাখার আহ্বান জানিয়েছে সংগঠন দু’টি।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার ঘোষিত ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটে অনলাইন শপিং এবং ভার্চুয়াল বিজনেসের জন্যে সাড়ে ৭ শতাংশ ভ্যাট বসানোর প্রস্তাব করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল।

বিজ্ঞাপন

গত বছরের বাজেটে একবার ৫ শতাংশ ভ্যাট দিয়েও তা ‘ভুলবশত ছাপা হয়েছে’ উল্লেখ করে আবার তুলে নেয়া হয়। তবে এবার সোশ্যাল মিডিয়া এবং ভার্চুয়াল বিজনেসের জন্যে ৭.৫ শতাংশ ভ্যাট বসানোর প্রস্তাব করায় নড়ে চড়ে বসতে হচ্ছে সংশ্লিষ্ট সবাইকে।

বর্তমানে প্রায় এক হাজার ই-কমার্স কোম্পানি দেশে ব্যবসা পরিচালনা করছে এবং তাদের বার্ষিক লেনদেনের পরিমাণ দুই হাজার কোটি টাকা।

২০১৫-১৬ বাজেট ঘোষণায় ই-কমার্সকে প্রথমবারের মতো সুনির্দিষ্ট করে ভ্যাটের আওতায় আনার ঘোষণা দিয়েছিলেন তৎকালীন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। তখন ই-কমার্সে ভ্যাটের হার ৪ শতাংশ করার প্রস্তাব রাখা হয়েছিল। পরে অবশ্য সেটি তুলে নেয়া হয়।