চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘আমার মৃত্যুর জন্য সানি দায়ী’

জাতীয় দলের বাঁ হাতি স্পিনার আরাফাত সানির স্ত্রী নাসরিন সুলতানা বৃহস্পতিবার রাতে ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যা চেষ্টা করার আগে একটি সুইসাইড নোটে লিখেছেন ‘আমার মৃত্যুর জন্য সানি দায়ী’।

বিজ্ঞাপন

সুইসাইড নোটের বিষয়টি চ্যানেল আই অনলাইনকে নিশ্চিত করেছেন সানির স্ত্রীর বোন শারমিন সুলতানা।

নাসরিন সুলতানার চিরকুটে লেখা ছিল- ‘আল্লাহর ওয়াস্তে দু’হাত জোড় করে তোমাদের অনুরোধ করছি, দয়া করে আমাকে হাসপাতালে নিও না। আল্লাহর দোহাই লাগে। দয়া করে আমাকে আমার মতো মরতে দাও। আমার জন্য অনেক জ্বালা নিয়েছো। মরার পর মাটি দিয়ে দিও, কিন্তু হাসপাতালে নিও না প্লিজ।

আমার আজকের অবস্থার জন্য সানি দায়ী। আল্লাহ্ যেন তাঁর বিচার করেন। আমার মৃত্যুর জন্য সানি দায়ী।’

বিজ্ঞাপন

শারমিন জানান বৃহস্পতিবার রাতে আরাফাত সানির সঙ্গে নাসরিনের ঝগড়া হয়, সকালে ঘুমের থেকে উঠে বারবার ডাকলেও সাড়া দিচ্ছিল না নাসরিন। এরপর তার পাশে আমরা ঘুমের ওষুধ ও একটি চিরকুট দেখতে পাই।

ধানমন্ডির রেঁনেসা হাসপাতালের চিকিৎসক প্রিয়ম তালুকদার জানিয়েছেন নাসরিনের অবস্থা আশঙ্কামুক্ত নয়, তাকে আইসিইউতে রাখা হয়েছে। আরো ২৪ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণের পর তার সম্পর্কে বলা যাবে।

নাসরিন সুলতানার বোন শারমিন সুলতানা চ্যানেল আই অনলাইকে জানিয়েছে, তারা আজ দুপুরে জিডি করতে মোহাম্মদপুর থানা গিয়ে জুম্মার নামাজ থাকায় কাউকে থানায় পাওয়া যায়নি।তবে রাতে আবার ও থানা গিয়ে তারা বিষয়টি নতি  ভুক্ত করবেন বলে জানান শারমিন সুলতানা।

মোহাম্মদপুর থানার ওসি মোহাম্মদ জামাল উদ্দিন মীর ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে চ্যানেল অাই অনলাইকে বলেন, আমরা জেনেছি এমন ঘটনা ঘঠেছে। তবে অতিরিক্ত ঘুমের ঔষুধ খাওয়ার কারণে এমন হতে পারে।তবে  এ ব্যাপারে এখনো কোন অভিযোগ দায়ের করা হয়নি। অভিযোগ পেলে তারপর আইনুযায়ী ব্যবস্থ গ্রহণ করা হবে।

বৃহস্পতিবার রাতে ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যা চেষ্টা করেন জাতীয় ক্রিকেট দলের বাঁহাতি স্পিনার আরাফাত সানির স্ত্রী নাসরিন সুলতানা।