চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

অনলাইনে ‘এ-লেভেল’র গণিত প্রশ্নফাঁস

পরীক্ষার আগেই এ-লেভেলের গণিতের প্রশ্ন অনলাইনে ফাঁস হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়ে তদন্ত করা হচ্ছে।

গত বৃহস্পতিবার বিকেলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রশ্নপত্রের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে।

বিজ্ঞাপন

প্রশ্নপত্র ফাঁস হওয়ার বিষয়ে পরীক্ষক বোর্ডের পক্ষ থেকে বলা হয়, পরীক্ষার্থীরা শুক্রবার পরীক্ষায় হলে বসার আগে প্রশ্নপত্রের ছবি খুব অল্প পরিসরে ছড়িয়ে পড়েছে।

কয়েকটি পরীক্ষা কেন্দ্র ঘুরে দেখা গেছে মাত্র একটি কেন্দ্রে প্রশ্ন-ফাঁসের কিছুটা আভাস মিলেছে বলে দাবি করেছেন পরীক্ষার দায়িত্ব পাওয়া ওই ফার্ম।

ফাঁস হওয়া প্রশ্নপত্রের থেকে মাত্র দুটি প্রশ্ন টুইটারে প্রকাশ করা হয়। সবগুলো প্রশ্নের জন্য শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ৭০ ইউরো করে চাওয়া হয়।

বিজ্ঞাপন

তবে প্রশ্ন-ফাঁসের ঘটনা এটাই প্রথম নয়। গতবছরও এ- লেভেলের গণিত প্রশ্ন অনলাইনে বিক্রি হয়েছে।

প্রশ্ন পত্রের ফাঁসের ব্যাপারে ইতিমধ্যে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। ক্রিমিনাল চার্জ গঠনের জন্য সকল তথ্য প্রমাণ ক্রাউন প্রসিকিউশন সার্ভিসের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এদিকে পরীক্ষক বোর্ডকে প্রশ্ন ফাঁস হওয়ার ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে অনলাইনে পিটিশন করেছেন ক্ষতিগ্রস্ত শিক্ষার্থীরা।

পিটিশনকারী জেনি লি বলেন, পরীক্ষায় বসার আগে যারা প্রশ্ন পত্র দেখতে পারেনি তাদের সাথে অন্যায় করা হয়েছে।

তবে অনেক শিক্ষার্থী প্রশ্নপত্র ফাঁস হওয়া হতাশ হয়েছেন বলে জানিয়েছেন সংবাদ মাধ্যম দি গার্ডিয়ান।