চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

অক্টোবরে রেমিট্যান্স বেড়েছে ১০ শতাংশ

চলতি অর্থবছরের অক্টোবরে রেমিট্যান্স বেড়েছে ১১ কোটি ১৮ লাখ ডলার। এক মাসের ব্যবধানে রেমিট্যান্স বেড়েছে প্রায় ১০ শতাংশ।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক জানিয়েছে, অক্টোবর মাসে প্রবাসীরা ১২৩ কোটি ৯১ লাখ ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন। সেপ্টেম্বরে এর পরিমাণ ছিল ১১২ কোটি ৭৩ লাখ ডলার।

ব্যাংকিংখাত সংশ্লিষ্টরা বলেছেন, ব্যাংকিং চ্যানেলে টাকা পাঠিয়ে আগের চেয়ে ভালো দাম পাওয়া এবং হুন্ডি প্রতিরোধে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের বিভিন্ন পদক্ষেপে কারণে বৈধ পথে রেমিট্যান্স বাড়ছে।

সাম্প্রতিক কয়েক অর্থবছরে রেমিট্যান্স প্রবাহে ছন্দপতন হয়েছিল। ২০১৩-১৪ অর্থবছরে রেমিট্যান্স আগের অর্থবছরের চেয়ে কমে যায়। এরপর আবার ২০১৫-১৬ এবং ২০১৬-১৭ অর্থবছরে কমে যায় রেমিট্যান্স।

নাম না প্রকাশ করার শর্তে বাংলাদেশ ব্যাংকের একজন সিনিয়র কর্মকর্তা চ্যানেল আই অনলাইনকে বলেন, গত কয়েক বছর ব্যাংকিং চ্যানেলে রেমিট্যান্স কমে যাওয়ার পর মোবাইল ব্যাংকিং ব্যবহার করে হুন্ডি ঠেকাতে নানা পদক্ষেপ নেয় কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

এছাড়া আমদানি বেড়ে যাওয়ায় ডলারের দর বাড়ছে। এক বছর আগের তুলনায় এখন ব্যাংকিং চ্যানেলে টাকা পাঠিয়ে একজন প্রবাসী প্রতি ডলারে ৩ থেকে ৪ টাকা বেশি পাচ্ছেন। এসব কারণে ব্যাংকিং চ্যানেলে প্রবাসীরা টাকা পাঠাতে বেশি উৎসাহিত হচ্ছেন। তাই রেমিট্যান্স বাড়ছে বলে জানান তিনি।

প্রতিবেদনে দেখা গেছে, চলতি অর্থবছরের প্রথম চারমাসে (জুলাই-অক্টোবর) মোট রেমিট্যান্স এসেছে ৫০৯ কোটি ৫৭ লাখ ডলার। যা আগের অর্থবছরের একই সময়ে ছিল ৪৫৫ কোটি ৩৮ লাখ ডলার। ফলে এক বছরের ব্যবধানে রেমিট্যান্স বেড়েছে ৫৪ কোটি ১৯ লাখ বা ১২ শতাংশ।

চলতি অর্থবছরের জুলাই মাসে রেমিট্যান্স এসেছে ১৩১ কোটি ৮২ লাখ ডলার, আগস্ট মাসে ১৪১ কোটি ১০ লাখ ডলার ও সেপ্টেম্বর মাসে এসেছে ১১২ কোটি ৭৩ লাখ ডলার।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অক্টোবর শেষে রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে এসেছে ৩০ কোটি মার্কিন ডলার, বিশেষায়িত দু’টি ব্যাংকের মাধ্যমে এসেছে এক কোটি ৫০ লাখ ডলার। আর বেসরকারি ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে এসেছে ৯৩ কোটি ডলার।

FacebookTwitterInstagramPinterestLinkedInGoogle+YoutubeRedditDribbbleBehanceGithubCodePenEmail